প্রিয়াংকা নিকের বিয়ের শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি – NariBangla

প্রিয়াংকা নিকের বিয়ের শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি

4 Replies

stardom

তারায় তারায় মিলন। একজন বলিউডের তারকা অন্যজন হলিউডের। দুই তারার মিলনে আলোকসজ্জিত উমেদ ভবন প্যালেস।

প্রিয়াঙ্কা-নিকের এই মহাক্ষণে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উপস্থিত থাকবেন বলে খবর চাউর হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর আশীর্বাদ থাকছে যে বিয়েতে সেখানে খাবারের আয়োজন কী? এ নিয়ে অবশ্য মানুষের বেশ আগ্রহ সৃষ্টি হয়েছে।

অতিথি আপ্যায়নে অবশ্য কোনো ত্রুটি রাখছেন এ তারকা জুটি। নিজেরাই সবকিছু তদারকি করছেন। তালিকায় কন্টিনেন্টাল ফুড, চায়নিজসহ বিভিন্ন দেশি-বিদেশি খাবার থাকছে।

অতিথিদের জন্য মোট ৮০ পদের খাবারের ব্যবস্থা করেছে প্রিয়াঙ্কা-নিক। এর মধ্যে রয়েছে রাজস্থানি কড়ি পকোড়ে, সাংগরি কি রোটি, বাজরা কে রোটি, মক্কাই কি রোটি, রাজস্থানি থালি, ডাল-বাটি চুর্মাসহ অনেক কিছু।

শুক্রবার থেকে প্রিয়াঙ্কা-নিকের বিয়ে উৎসব শুরু হবে। এ জন্য বৃহস্পতিবার থেকে প্যালেস ভাড়া করা হয়েছে। আমন্ত্রিত অতিথিদের জন্য বিয়ের দিন থাকবে রিটার্ন গিফট। প্রত্যেকে অতিথিকে রুপার টাকা উপহার দেবেন প্রিয়াঙ্কা। রুপার টাকার একপিঠে থাকবে প্রিয়াঙ্কা-নিকের নামের আদ্যক্ষর (এনপি)। আর অন্য পিঠে থাকবে লক্ষ্মী-গণেশের ছবি।

দিল্লিতে পৌঁছেই হবু স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করলেন নিক। পাপারাজ্জিদের ক্যামেরায় অনেকটা উচ্ছ্বসিত দেখা গেছে হবু বরকে।

দিল্লিতে পৌঁছে এই চোপড়া এবং জোনাস পরিবার একসঙ্গে ছবি তুলেছেন। এ সময় হবুস্ত্রীর সঙ্গে একান্তে সময় কাটাতে দেখা গেছে নিককে। সেসময়ের তোলা ছবি ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ারও করে ফেলেছেন প্রিয়াংকা। ছবিতে দেখা গেছে নিকের সঙ্গে রোমান্টিক মুডে আছেন পিগি চপস। হবু বরের আগমনে ছবির ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘ওয়েলকাম হোম বেবি’.

ইতিমধ্যে চোপড়া ও জোনাস পরিবারে তোড়জোড় শুরু হয়ে গিয়েছে। সাজানো হচ্ছে যোধপুরের উমেদ ভবন।

জানা গেছে, দীপিকা ও রণবীরের পথ ধরেই হাঁটছেন নিক-প্রিয়াংকা। আনুশকা, দীপিকাদের মতো সুদূর ইতালিতে গিয়ে বিয়ের পিঁড়িতে না বসলেও নিরাপত্তার ব্যাপারে একইরকম সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রিয়াংকা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর খবর, ভারতীয় বধুকে বরণ করে নিতে নিকের সঙ্গে এসেছেন জো জোনাস, সোফি টার্নার ইতিমধ্যে যোধপুরে হাজির হয়েছেন।

আর সেই সময় থেকেই নিরাপত্তার নিশ্ছিদ্র চাদরে ঢেকে দেয়া হয়েছে উমেদ প্রাসাদ। গোটা যোধপুর জুড়েই নাকি এই নিরাপত্তার রেশ কোথাও না কোথাও দেখা যাচ্ছে।

রিপোর্টে প্রকাশ, প্রিয়াংকা-নিকের বিয়ের জন্য উমেদ ভবনের নিরাপত্তা রক্ষীদের ইতিমধ্যেই ৫ দিনের ছুটিতে পাঠানো হয়েছে।

বিয়ের অনুষ্ঠানে অতিথি ভিন্ন শুধুমাত্র প্রিয়াংকার নিয়োগপ্রাপ্ত নিরাপত্তা রক্ষীরাই উপস্থিত থাকবেন।

প্রিয়াংকার কড়া নির্দেশ, দায়িত্বে থাকাকালীন কোনো নিরাপত্তারক্ষীরা স্মার্টফোন ব্যবহার করতে পারবেন না।

যোগাযোগ রক্ষার্থে তাদেরকে দেওয়া হবে ক্যামেরা ও ইন্টারনেট সংযোগবিহীন সাধারণ মানের মোবাইল দেওয়া হবে।

উমেদ ভবনের ক্যাটারিং কর্মীদের জন্যও সেই একই ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমগুলো।

বিয়ের অতিথিদের জন্য রয়েছে আরও কড়া নিদের্শ। প্রিয়াংকার নিদের্শনা অনুযায়ী, অনুষ্ঠানের অতিথিরা কোনো স্মার্টফোন নিয়ে ঢুকতে পারবেন না।

অনুষ্ঠানের কোনো ছবিও তোলা যাবে না বলে নির্দেশ রয়েছে।

পুরো উমেদ ভবন জুড়ে লাগানো হয়েছে জ্যামার। কেউ যাতে কোনোভাবে প্রিয়াংকা-নিকের ছবি তুলে ইন্টারনেটে না ছড়াতে পারে।

কেন এতো কঠোর নিদের্শনা সে প্রসঙ্গে ভারতীয় মিডিয়াসহ বলিমহলে যে খবর রটেছে তাহলো – দুটি মার্কিন এবং একটি ভারতীয় ম্যাগাজিন সংস্থার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন প্রিয়াংকা।

ফলে বিনা অনুমতিতে এই হাইপ্রোফাইল বিয়ের কোনো ছবি বাইরে আসবে না বলেও স্পষ্ট নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, দীপ-রণবীরের বিয়েতেও এমন নিরাপত্তা নেয়া হয়েছিল। তবু ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই সেই বিয়ের কিছু দৃশ্য দূর থেকে ক্যামেরায় ধারণ করে ফাঁস করে দেয়।

যদিও এটি ছাড়া আর কোনো ছবি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত সংবাদমাধ্যমের কাছে এসে পৌঁছায়নি।

4 comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

//GA Code Start //GA code end