শবনম বুবলি – সংবাদ পাঠিকা থেকে নায়িকা হওয়ার গল্প – NariBangla

শবনম বুবলি – সংবাদ পাঠিকা থেকে নায়িকা হওয়ার গল্প

Comment

stardom

ছিলেন বেসরকারী চ্যানেল বাংলাভিশনের সংবাদ পাঠিকা। কোনদিন অভিনয় করেন নি – না মঞ্চে, না ছোটপর্দায়। কিন্তু সেই তিনিই যখন চলচ্চিত্রে পদার্পন করলেন তখন সাড়া পড়ে গেল চারদিকে। শুরুতেই শাকিব খানের বিপরীতে, নায়িকা চরিত্রে। যে চরিত্রে অভিনয়ের জন্য অপু বিশ্বাসের কথাই শোনা যাচ্ছিল সবচে’ বেশি। কিন্তু অপু বিশ্বাস সরে গেলে সে জায়গায় পূর্ণিমা, মাহিয়া মাহি, নুসরাত ইমরোজ তিশা এমনকি কলকাতার কোয়েল মল্লিকের নামও শোনা যাচ্ছিল। কিন্তু সকল প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে বসগিরি চলচ্চিত্রের নায়িকা হিসেবে যিনি চলচ্চিত্রপ্রেমীদের সামনে উপস্থিত হন তিনি শবনম বুবলি।

 

 তিনি বাংলাভিশনে সংবাদ পাঠ দিয়ে কর্মজীবন শুরু করেন। পরে ২০১৬ সালে বসগিরি চলচ্চিত্র দিয়ে বড় পর্দায় অভিনয় শুরু করেন।

প্রাথমিক জীবন

বুবলি বাংলাদেশের নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি অর্থনীতি বিষয়ে স্নাতক পাস করেন। পরে দুই বছর এলএলবি পড়েন, কিন্তু তা শেষ করেন নি। মাঝে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়-এ এমবিএতে ভর্তি হন এবং তার কাজের ফাঁকে ফাঁকে ক্লাস করেন।

চার ভাই বোনের মধ্যে বুবলি তৃতীয়। তার বড় বোন নাজনীন মিমি একজন সঙ্গীতশিল্পী এবং মেজবোন শারমিন সুইটি একটি বেসরকারী চ্যানেলের সংবাদ পাঠিকা।

কর্মজীবন

বুবলির কর্মজীবন শুরু হয় সংবাদ পাঠ দিয়ে। তিনি বাংলাদেশের জনপ্রিয় বেসরকারী টেলিভিশন চ্যানেল বাংলাভিশন-এ ২০১৩ সালে সংবাদ পাঠ শুরু করেন। ২০১৬ সালে বসগিরি চলচ্চিত্রের পরিচালক শামীম আহমেদ রনি তাকে এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব দিলে তিনি সম্মত হন। অপু বিশ্বাসকে এই চরিত্রের জন্য নির্বাচন করা হয়েছিল। পরে অপু নিজেকে এই চলচ্চিত্র থেকে সরিয়ে নিলে তার স্থানে বুবলিকে নির্বাচন করা হয়। এই চলচ্চিত্রে তার বিপরীতে অভিনয় করেন শাকিব খান। এই ছবির শুটিং চলাকালীন তিনি শুটার চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পান। ছবিটি পরিচালনা করেছেন রাজু চৌধুরী এবং এই ছবিতেও তার বিপরীতে ছিলেন শাকিব খান। চলচ্চিত্র দুটি ঈদুল আযহায় সারাদেশে মুক্তি পায়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

//GA Code Start //GA code end